প্রাচীনকালে মানুষ জানত যে পৃথিবী একটি সমতল ভুমি এবং একটি কচ্ছপের পিঠের উপরে অবস্থান করছে এবং এমন আরো বহু কাল্পনিক মতবাদ চালু ছিল। মানুষ জানত সূর্য পুথিবীর চারদিকে ঘোরে, এই কথার বিরোধিতার জন্য ব্রুনো ও গ্যালিলিওর উপর নেমে এল মৃত্যু খড়গ। পৃথিবীতে স্রষ্ট‍ার ধারনা আসার পর হতেই বহু ধর্মের সৃষ্টি হয়েছে। কোরআন, বাইবেল, বেদ, ত্রিপিটক সহ আরো বহু ধর্মীয় গ্রন্থে স্রষ্টার একক অবস্থানের কথা বলা হয়েছে। বর্নিত হয়েছে যে, পৃথিবী এবং পৃথিবীর সমস্থ প্রান স্রষ্টার রহস্যময় সৃষ্টি, এইসব জ্ঞান শুধুই তার মধ্যে সীমাবদ্ধ। স্রষ্টা বিশ্বভ্রক্ষান্ডে একক ও অদ্বিতীয়, কিন্তু সত্যিই কি তাই? “মেসেজ ফর্ম ডিজাইনার’স” বা “ইলোহিমদের বার্তা” গ্রন্থে রায়েল দেখিয়েছেন এই পৃথিবীর সমস্থ প্রান ও আমাদেরকেও সৃষ্টি করেছিলেন আমাদেরই ছায়াপথের অন্য অংশের প্রাগ্রসর বিজ্ঞানীরা। তারা ব্যবহার করেছিলেন জটিল ডিএনএ (রিইবোনিউক্লিইক এসিড) জ্বীনতত্ত্ব প্রকরন সমুহ এবং এখন যেহেতু আমরা কৃতিত্ব স্থরের কাছাকাছি পৌছে যাচ্ছি তাই তারা এখন পৃথিবীতে এসে খোলাখুলি ভাবে আমাদের সাথে সাক্ষাৎ করতে চান। ১৯৭৩ সালের ডিসেম্বরে ফ্রান্সের দুরবর্তী অঞ্চলে এক অগ্নিচুড়ায় কাকতালীয় ভাবে রায়েলের সাথে সারাসরি সাক্ষাৎ করেন একজন ইলোহিম এবং তার মাধ্যমে তারা তাদের বার্তাসমুহকে পৃথিবীময় ছড়িয়ে দেন; পৃথিবীতে প্রানের অস্থিত্ব ধারাবাহিক পরিবর্তনের ফল নয় বরং সৃষ্টির বহি:প্রকাশ। এটা স্বর্গীয় নয় বরং গবেষনাগারে জীব ও জ্বীন কোষের সংমিশ্রনে বৈজ্ঞানিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক সৃজনশীল পদ্ধতিতে ‍সৃষ্ট। “মেসেজ ফর্ম ডিজাইনার’স” এই বইটিকে “চুড়ান্ত বার্তা”ও বলা হয়। আপনীও পড়ুন তাহলে পাল্টে যাবে আপনার চিন্ত‍াধারা ইতিমধ্যে যা পাল্টে দিয়েছে প

বর্তমান বিশ্বে প্রতিরুপ প্রক্রিয়া বা ক্লোনিং প্রযুক্তি হচ্ছে অমরত্ব বা অনন্ত জীবনে প্রবেশের প্রথম ধাপ। অতীতে ও বর্তমানে পৃথিবীতে প্রভাব বিস্তারকারী সমস্ত ধর্মগ্রন্থই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ পুর্নজীবন, পুনুরুত্থান বা অনন্ত জীবন দান করার। কিন্তু যে স্বর্গীয় বা বেহেশতীয় জীবনের কথা বলা হয় সেটা কতটা বৈজ্ঞানিক যুক্তি সম্পন্ন? রায়েল এই বইতে দেখিয়েছেন মানব ক্লোনিংয়ের মাধ্যমে কিভাবে অনন্ত জীবন, অমরত্ব বা চিরস্থায়ী পাওয়া যাবে। এই বইটি নিছক হাহাকার নয়, বিজ্ঞান ভিত্তিক ও যুক্তি সম্পন্নভাবে তিনি ব্যাখ্যা করেছেন কিভাবে অনন্ত জীবনে প্রবেশ করা যাবে এবং হাজার হাজার বছর এমনকি অনন্তকাল ধরে একজন মানুষ শাররীক বা শাররীক অবস্থান ছাড়াই বেচে থাকতে পারবে।

উল্লেখ্য, বইয়ের বর্ননাগুলি দ্বা-বিংশ শতাব্দির বিজ্ঞান কল্পকাহিনী নয় বরঞ্চ এগুলো পরবর্তী বিশ বছরের মধ্যে সম্ভবপর হয়ে উঠবে।

শুধুমাত্র ত্রিশবছর আগেও যদি কেউ বলত কম্পিউটার আমাদের বিপ্লব ঘটাবে কেউ সেটা বিশ্বাস করত না কিন্তু আমাদের পচিশ হাজার বছরের বিজ্ঞানের অগ্রযাত্রাকে ধন্যবাদ। এই বইটি মুলত বিজ্ঞান ভিত্তিক কিছু ধ্যানের নির্দেশিকা যা রায়েল কর্তৃক উদ্ভাবিত। তিনি দেখিয়েছেন ধ্যান কিভাবে বিজ্ঞানের চালিকা শক্তি বা অতি গুরুত্বপুর্ন অংশ হতে পারে। ইন্দ্রিয়জ ধ্যানের মাধ্যমে আপনী নিজেকে নতুন ভাবে আবিস্কার করতে পারবেন, শিখতে পারবেন কিভাবে জীবনের হাসি-আনন্দ, দুঃখ, যৌনতা, পরিবার, সমাজ ও রাষ্টীয় ব্যবস্থা ইত্যাদি উপভোগ করবেন। রায়েল নির্দেশিত ইন্দ্রিয়জ ধ্যান আজকের দিনে সর্বপ্রকার মানুষের জন্য খুবই জরুরী। এই ধ্যান অনন্ত কোষের মধ্যে ক্ষুদ্রাকারে ও সুচারুভাবে সচেতনতা জাগায় এবং জৈব রাসায়নিক পর্যায়ে নিয়ে

“জেনিওক্রেসি” রায়েলের বহুল আলোচিত একটি বই, যা বিশ্ব নেতৃবৃন্দদের মধ্যেও ব্যাপকভবে আলোচিত হয়েছে। পৃথিবী ও নতুন প্রজম্নের বিভিন্ন সমস্যা যেমন; যুদ্ধ, ক্ষুধা, দারিদ্রসহ আরো বহুবিদ সমস্যা ও তার সমাধান আলোচনা করা হয়েছে। রায়েল খোলামেলা ভাবেই আলোচনা করেছেন; একটি দেশের সরকার ব্যবস্হা কেমন হবে। তার মতে: Collegial government by geniuses elected under a selective democracy. তিনি ব্যখ্যা করেছেন কিভাবে জেনিওক্রেসি প্রতিষ্ঠিত হবে এবং বৈজ্ঞানিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক সৃজনশীল উপায়ে একটি সুন্দর পৃথিবী তৈরীর জন্য অগ্রসর হওয়া যাবে, যার মাধ্যমে আমরা চিরস্থায়ী জীবনে প্রবেশ করতে পারি। রায়েল আপনাকে আমন্ত্রন জানিয়েছে, বইটি পড়ুন এবং নিজের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিন।

বিগত ত্রিশবছরে রায়েল পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যত সভা-সেমিনার করেছেন সেই সব সভা সেমিনার হতে তার বানী সংকলন হচ্ছে এই বইটি। তার গুরুত্বপুর্ন উক্তির বিশদ ব্যাখ্যাসহ বর্নিত হয়েছে। বইটিতে বহু বিষয়ে আলোকপাত করা হয়েছে যেমন; ভালবাস, সুখভোগ, আত্মিকতা, পড়ালেখা, মিথলজি, সন্ত্রাস, বিজ্ঞান, প্রেম সহ আরো বহুবিদ বিষয়, যা আপনার মনে তৈরী হওয়া প্রশ্নগুলির সমাধান করতে পারবে।

এই কমিকসের বইটি যে গ্রন্থের উপর ভিত্তিকরে তৈরী হয়েছে তা হলো;
„বুদ্বিদিপ্ত নক্সাচিত্র – নক্সাচিত্রকারদের পক্ষ থেকে বার্তা“

এখানে আপনি রায়েলের বইগুলি ডাউনলোড করতে পারেন

অন্যান্য ভাষা (ই-বুকস)

Language English name eBooks
English English 7
العربي Arabic 2
বাংলা Bengali 6
Tamaziɣt Berber 1
Български Bulgarian 2
Burmese Myanmar 4
简体字中文版电子书 Chinese Simplified 8
繁体中文 Chinese Traditional 6
Hrvatske Croatian 2
Nederlandse Dutch 2
Français French 10
فارسی Farsi 6
Deutsch German 5
Ελληνικά e-βιβλία Greek 2
עִבְרִית Hebrew 3
Bahasa Indonesian 5
Italiani Italian 6
日本語 Japanese 6
ភាសាខ្មែរ Khmer 2
한국어 Korean 7
조선어 Korean (North) 1
Lietuvių Lithuanian 2
Magyar Hungarian 3
Монголийн Э-номнууд Mongolian 3
नेपाली Nepali 6
Polskie Polish 5
Português Portuguese 4
Romanesc Romanian 5
Русские Russian 6
Slovak Slovakian 6
Slovenske Slovenian 6
Srpska Serbian 2
Español Spanish 6
Svenska Swedish 2
ภาษาไทย Thai 5
Tagalog Filipino 1
Türkçe Turkish 1
Tiếng Việt Vietnamese 6